অস্ট্রেলিয়ায় ৮ বছর পর ধরা পড়ল সেই দানব কুমির

অস্ট্রেলিয়ার ক্যাথরিন নদী থেকে ধরা হয় ৬০০ কেজি ওজনের বিশাল কুমিরটিকে। ছবি: এএফপি
খোঁজ-খোঁজ-খোঁজ। পুরো আট বছর ধরে। শেষমেশ পাকড়াও করা গেছে লোনা পানির দানবটাকে। ৬০০ কেজি ওজনের বিশাল কুমিরটি ধরা পড়েছে ফাঁদে। আজ মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার বন্য প্রাণীবিষয়ক কর্মকর্তারা এ তথ্য জানান।

এএফপির খবরে জানানো হয়, ২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়ার উত্তরাঞ্চলের ক্যাথরিন নদীতে ১৫ ফুটের কুমিরটি আছে বলে জানা যায়। এরপর থেকে কুমিরটিকে ধরতে একের পর এক ফাঁদ পাতা হয়। বন্য প্রাণীবিষয়ক কর্মকর্তারা বলছেন, কুমিরটির বয়স ৬০ বছর।

ফাঁদ পেতে ধরা হয় কুমিরটিকে। ছবি: এএফপি
বন্য প্রাণীবিষয়ক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জন ব্রুক বলেন, কুমিরটিকে ধরতে অনেক সরঞ্জাম আনা হয়। কারণ, এটিকে ধরা যথেষ্ট কঠিন ছিল। এত বড় ও বয়স্ক প্রাণীকে ধরাটা ছিল খুব রোমাঞ্চকর। বয়স্ক প্রাণীটিকে যত্নসহকারে ধরতে হয়েছে।

নর্দার্ন টেরিটরি বন্য প্রাণী পরিচালনাবিষয়ক প্রধান ট্রেসি ডালডিগ বলেন, নিরাপত্তার কারণে কুমিরটিকে আলাদা রাখা হয়েছে। ডালডিগ এক বিবৃতিতে জানান, বন্য প্রাণী পরিচালনা দল ক্যাথরিন নদী থেকে এর আগে এত বড় প্রাণী ধরেনি।

বন্য প্রাণীবিষয়ক রেঞ্জাররা প্রতিবছর গড়ে ২৫০টির মতো কুমির ধরে, যেগুলো সমস্যা করে থাকে। অস্ট্রেলিয়ার উত্তরাঞ্চলে লোনা পানিতে থাকা কুমিরগুলোর হামলায় বছরে গড়ে দুজনের মৃত্যু হয়।

১৯৭০ সালে অস্ট্রেলিয়ায় কুমিরকে সংরক্ষিত প্রজাতির প্রাণী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। গত বছর কুমিরের হামলায় বয়স্ক এক নারীর মৃত্যু হয়। কুমির নিয়ন্ত্রণে আনতে অস্ট্রেলিয়ার সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়।

Related posts

Leave a Comment