ভারতের ভিসা দেয়নি খালেদার আইনজীবী লর্ড কার্লাইলকে

খালেদা জিয়ার আইনজীবী লর্ড কার্লাইলকে ভারতের ভিসা না দেয়ায় দেশটির সমালোচনা করেছে বিএনপি। দলের নেতারা বলছে, ভিসা না দেয়া হলে প্রমাণ হবে খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড এবং কারাগারে রাখার পেছনে ভারতীয় হাইকমিশনের ভূমিকা আছে। তারা অভিযোগ করেন, ভারতের বন্ধু আওয়ামী লীগ, এদেশের জনগণ নয়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি খালেদা জিয়ার জামিন প্রক্রিয়া দীর্ঘায়িত হওয়ায়, মার্চ মাসের শেষে বেগম জিয়ার সব মামলা মোকাবেলা করতে ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কার্লাইলকে নিয়োগ দেয় বিএনপি।

মামলা পরিচালনায় বাংলাদেশে আসতে মে মাসের শুরুতে লন্ডনে ভিসার আবেদন করেন লর্ড কার্লাইল। কিন্তু ভিসা পাননি।

এরপর ১৩ জুলাই দিল্লির ফরেন করেসপন্ডেন্ট ক্লাবে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা ও কারাদণ্ডের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করতে ভারতীয় ভিসার আবেদন করেন লর্ড কার্লাইল। ওই সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার অন্য আইনজীবী এবং বিএনপির কয়েনজন নেতার উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত ভারতে যাওয়ার অনুমতি পাননি কার্লাইল।

বিএনপির দাবি কার্লাইলকে ভারত সফরের অনুমতি না দিতে দিল্লিতে জোরালো সুপারিশ করেছে ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন।

বিএনপির নেতাদের অভিযোগ, ভারতের সম্পর্ক আওয়ামী লীগের সাথে, এ দেশের জনগণের সাথে নয়।

নির্বাচন সামনে রেখে ভারতের সহানুভূতি পেতে একের পর এক আওয়ামী লীগ নেতারা দিল্লি সফর করছেন বলেও দাবি করেন তারা।

Related posts

Leave a Comment