ঝাড়বাতি দিয়ে সহজেই ঘর সাজাবেন যেভাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক :: অতীতের আভিজাত্য হচ্ছে ঝাড়বাতি। বাঙালি তার ঘর সাজাতে ঝাড়বাতি বেছে নিতে ভুল করে না। তাই ঐতিহ্যের এ আভিজাত্য দিয়ে সাজাতে পারেন আপনার অন্দরমহলও। ঝাড়বাতির আলো আপনার ঘরকে পাল্টে দেবে। ঘরকে আরও মোহনীয় করে তুলবে। তাই সহজেই ঝাড়বাতি দিয়ে সাজিয়ে নিন ঘরের রূপ। ১. ক্রিস্টাল বা স্ফটিকের মতো ঝাড়বাতির মধ্যে রাজবাড়ির আভিজাত্য আছে। এ ধরনের ঝাড়বাতি বড় হলঘরে লাগালে সৌন্দর্য বেড়ে যায়। বিভিন্ন আকার ও আয়তন অনুযায়ী পাওয়া যাবে। তাই ঘরের আকার ও নিজের পছন্দ অনুযায়ী কিনতে হবে। ২. আভিজাত্যের পাশাপাশি একটু এক্সপেরিমেন্ট করতে চাইলে হরিণের শিংয়ের আকারের ঝাড়বাতি…

বিস্তারিত

শীতে ত্বক ফাটে কেন? জেনে নিন প্রতিকার

লাইফস্টাইল ডেস্ক :: শীত চলে এসেছে। শুষ্ক প্রকৃতি। বাইরে বইছে ঠান্ডা বাতাস। হিমেল হাওয়ার এমন দিনে কম-বেশি সবারই ত্বক ফাটে। সাধারণত শীত এলেই আমাদের ত্বক ফেটে যায়। মরা চামড়াগুলো ধারালো সূচের মতো হয়ে যায়। ত্বক হয়ে ওঠে রুক্ষ্ম, খড়খড়ে। যা অন্যান্য ঋতুতে হয় না। তাই খুব সহজেই আমাদের ত্বকে, ঠোঁটে, পায়ে ফাটা দাগ দেখা যায়। আপনি এজন্য ঠিকই রোজ নিয়মমতো গোসলের সময়ে তেল ও রাতে শোয়ার সময়ে ক্রিম মাখছেন। বারবার লিপজেল ব্যবহার করছেন। তারপরও ত্বক ফেটে যাচ্ছে। ঠোঁটে শুষ্কতা তৈরি হচ্ছে। ঠোঁট ফাটা দেখা যাচ্ছে। জানতে ইচ্ছে করে, এমন কেন হয়?…

বিস্তারিত

করোনায় আক্রান্তের শ্বাসকষ্ট কমানোর উপায়

ডা. হিমেল ঘোষ:: করোনাভাইরাসের মাঝারি থেকে তীব্র সংক্রমণের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপসর্গ হলো শ্বাসকষ্ট। শ্বাসকষ্ট থেকে একজন করোনাভাইরাস সংক্রমিত ব্যক্তির মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। করোনা সংক্রমণজনিত শ্বাসকষ্ট নিরাময়ের স্বীকৃত একটি চিকিৎসা পদ্ধতি হলো প্রোনিং বা প্রোন পজিশনিং। অর্থাৎ উপুড় হয়ে শোয়া এবং হাফ লায়িং পজিশনিং বা আধশোয়া অবস্থায় থাকা। আগে প্রোন পজিশনে রাখতে বলা হতো শুধু এআরডিএস আক্রান্ত রোগীদের। কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীদের বলা হয় সেলফ প্রোনিং করতে। অর্থাৎ তারা নিজেরাই উপুড় হয়ে শুয়ে থাকবেন। প্রোনিং অর্থাৎ উপুড় হয়ে শোয়া অবস্থায় ফুসফুসের অক্সিজেন সরবরাহ বৃদ্ধি পায়। ফলশ্রুতিতে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির হাইপোক্সিক…

বিস্তারিত

মনের ওপর কোন রঙের কেমন প্রভাব?

অনলাইন ডেস্ক:: শরীর ও মন মিলেই আমাদের সমগ্র সত্তা। সুস্থ শরীর ছাড়া সুন্দর মন, সুস্থ মন ছাড়া সুস্থ শরীর কোনোটাই সম্ভব নয়। বিভিন্ন ধরনের শারীরিক অবস্থা যেমন মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব বিস্তার করে; তেমনই নানাবিধ মানসিক অস্থিরতাও শারীরিক সুস্থতার ওপর আঘাত হানে। আধুনিক যান্ত্রিক জীবনে মানসিক অবসাদ, বিষণ্নতা, হতাশা প্রভৃতি যেন নিত্যসঙ্গী। আমরা শারীরিক সুস্থতা নিয়ে যতটা উদ্বিগ্ন থাকি; মনের সুস্থতার ব্যাপারে ঠিক ততটাই উদাসীন। মানসিক স্বাস্থ্য কিন্তু কোনো অংশেই শারীরিক স্বাস্থ্যের চেয়ে কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। পরিপূর্ণ স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনের জন্য শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের সংযোগ আবশ্যক। একটিকে অবহেলা করে কখনোই…

বিস্তারিত

মনের সুস্থতার জন্য জরুরি যে কাজগুলো

ডা. হিমেল ঘোষ :: মানসিক স্বাস্থ্য হলো আমাদের মন, আচরণগত ও আবেগপূর্ণ স্বাস্থ্যের অপরিহার্য এবং অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ। আমরা কী চিন্তা করি, কী অনুভব করি এবং জীবনকে সামলাতে আমাদের চিন্তা-চেতনা কীভাবে ব্যবহার করি- এগুলোই আসলে আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের অর্থবহ অংশ। একজন মানসিকভাবে সুস্থ মানুষ নিজের সম্পর্কে যথাযথ ধারণা রাখেন এবং কখনোই মাত্রাতিরিক্ত আবেগ, যেমন রাগ, ভয়, হিংসা, অপরাধবোধ বা উদ্বেগ দ্বারা আবিষ্ট হন না। জীবনে যখন যেরকম পরিস্থিতি উদ্ভুত হয়, তা সামলে নেওয়ার ক্ষমতা তারা রাখেন। মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা শুধু বাংলাদেশেই নয় বরং বিশ্বব্যাপী একটি ক্রমবর্ধমান সামাজিক ও স্বাস্থ্য সমস্যা।…

বিস্তারিত

চুল পড়ার সমস্যায় যা করবেন

চুল পড়া স্বাভাবিক ব্যাপার। প্রতিদিন একজন মানুষের গড়ে ১০০টি চুল পড়ে। তবে অনেক বেশি হারে চুল পড়তে শুরু করলে তা দুশ্চিন্তার ব্যাপার। এর চিকিৎসা নেওয়া প্রয়োজন। অস্বাভাবিক হারে চুল হারানোর কারণ মূলত দুটি—বংশগত ও বয়সজনিত। বংশগত বা জেনেটিক কারণে চুল পড়ার ক্ষেত্রে হরমোন দায়ী। এ ছাড়া বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে চুলের ফলিকলগুলো সংকুচিত হয়ে যায় বা চুলের বৃদ্ধিচক্র সংক্ষিপ্ত হয়ে যায়। ফলে চুল গজানোর হারের চেয়ে পড়ার হার বেড়ে যায়। এসব ক্ষেত্রে মিনোক্সিডিল টপিক্যাল সলিউশন চুলের ফলিকলগুলো বৃদ্ধি করার মাধ্যমে চুলের বৃদ্ধি পর্যায় সংক্ষিপ্ত করে। এতে চুল লম্বা ও ঘন…

বিস্তারিত